অফিসে মেনে চলুন এই ১২টি আদবকায়দা !!!!

       কর্মজীবী মানুষের দিনের বড় একটা সময় অফিসে কাটাতে হয়। অফিস আমাদের জীবনে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। আবার অফিসে কেমন আচরণ করছেন তার উপর নির্ভর করছে অনেক কিছু। আপনার পদোন্নতি, সহকর্মীর সাথে সম্পর্ক, কাজের মান ইত্যাদি সব কিছু নির্ভর করছে আপনার আচরণের উপর। অফিসে একটু অসচেতন হলে সম্মুখীন হতে হয় প্রতিকূল কোন পরিস্থিতির। অফিসে কিছু আদবকেতা সবার মেনে চলা উচিত। এমন কিছু আদবকেতা নিয়ে আজকের এই ফিচার।    

১। সহকর্মীদের আলোচনার মাঝে কথা বলা থেকে বিরত থাকুন। দুইজন সহকর্মী যখন নিজেদের মধ্যে কথা বলেন, তখন তাদের মাঝে কথা বলাটা যেমন অভদ্রতা তেমনি তা সহকর্মীদের বিরক্তির কারণ হয়।

২। অফিসে জোরে কথা বলা থেকে বিরত থাকুন। শান্তভাবে আস্তে আস্তে কথা বলুন। আপনার কথার আওয়াজ অন্যের সমস্যা কারণ যেন না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখুন।

৩। যেসব অফিসে নির্দিষ্ট পোশাক পরার নিয়ম নেই তারা পোশাকের দিকে বিশেষ খেয়াল রাখবেন। অফিসে নিজেকে যতটা সম্ভব মার্জিত, ভদ্র,  রুচিসম্মত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন এবং স্মার্টলি উপস্থাপন করুন।

৪। যেসব জুতা থেকে হাঁটার সময় শব্দ হয় এমন জুতা ব্যবহার না করা ভাল।

৫। সহকর্মীদের সাথে জাদুকরী দুটি শব্দ সবসময় বলুন। তা হল থ্যাংক ইউ এবং প্লিজ। ছোট এই দুটি শব্দ সহকর্মীর সাথে আপনার সম্পর্ক আরও সহজ এবং সুন্দর করে তুলবে।

৬। কড়া গন্ধযুক্ত খাবার অফিসে আনা থেকে বিরত থাকুন।

৭। কড়া গন্ধের সুগন্ধি বা আতর ব্যবহার করবেন না। হাল্কা ঘ্রানের বডি স্প্রে/ ডিওডোরেন্ট ব্যবহার করুন।

৮।   নিজের ডেস্ক এবং ব্যবহার্য জিনিসপত্র গুছিয়ে রাখার অভ্যাস করুন।

৯। মোবাইল ফোনের রিঙ টোন নিয়ন্ত্রণ রাখুন। এমন রিঙ টোন ব্যবহার করুন যাতে অন্য সহকর্মীর কাজে সমস্যা না হয়।

১০। অফিসে অতিরিক্ত ফোনে কথা বলা থেকে বিরত থাকুন। আপনি অফিসে কাজ করতে এসেছেন, ফোনে কথা বলতে নয়। খুব বেশি  জরুরি প্রয়োজন না হলে অফিসের টেলিফোন দিয়ে বাড়িতে পরিবারের লোকজনদের সঙ্গে কথা বলা পরিহার করুন।

১১। হাতের কাজ, জরুরি অ্যাসাইনমেন্ট শেষ করেই অফিস ত্যাগ করা উচিত, অর্ধসমাপ্ত কিংবা অসমাপ্ত অবস্থায় কাজ রেখে যাওয়া উচিত নয়।

১২। অফিসে অন্যের সমালোচনা, পরনিন্দা, পরচর্চা এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। আপনার সাথে সহকর্মীর সম্পর্কের অবনতি ঘটাতে পারে এই একটি কাজ।

আমাদের এই পোস্টি ভালো লেগে থাকলে কমেন্টস করুন আর সেয়ার করুন। ধন্যবাদ

[x]

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *